আগুন নিয়ে খেল না, ভারতকে হুঁশিয়ারি লালচিনের।

আগুন নিয়ে খেলোনা ভারতকে হুশিয়ারি লাল চিনের।

1487476788511বেজিং-নয়াদিল্লিঃ  মোক্ষম চাল! আর তাতেই চিনের ঘুম কেড়ে নিয়েছে ভারত।  সমস্ত রক্তচক্ষু উপেক্ষা করেই ভিয়েতনামকে আকাশ মিসাইল দিচ্ছে ভারত।  সারফেস টু এয়ার মিসাইল ভিয়েতনামকে বিক্রি করার সিদ্ধান্তে আদৌতে যে চিনকেই কড়া বার্তা পাঠাচ্ছে ভারত, তা এককথায় স্বীকার করে নিচ্ছেন দেশের সামরিক পর্যবেক্ষকরা সবাই।  তবে শুধু ভিয়েতনামই নয়, আগামিদিনে চিনকে আরও চাপে রাখতে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার রাষ্ট্রগুলির সঙ্গে প্রতিরক্ষা চুক্তি আরও সম্প্রসারিত করতে চাইছে ভারত।  তবে আন্তজাতিক ক্ষেত্রে ভিয়েতনামের সঙ্গে এই চুক্তির বিষয়টি সম্পূর্ণ আলাদা এবং গুরুত্বপূর্ণ বটেও।

আগুন নিয়ে খেল না, ভারতকে হুঁশিয়ারি লালচিনের।

কারন, দক্ষিণ চিন সাগর নিয়ে চিনের সঙ্গে ভিয়েতনামের সম্পর্ক যথেষ্ট তিক্ত।  আন্তর্জাতিক ট্রাইবুনাল আদালত চিনের দক্ষিণ চিন সাগরের উপর একচ্ছত্র কোনও অধিকার নেই বলে চিনকে একপ্রকার বড়সড় ধাক্কা দেওয়ার পর ভারত খোলাখুলি স্বাগত জানিয়েছিল ওই নির্দেশকে।  এবং আমেরিকা ও ভারত একসুরেই বিবৃতি প্রকাশ করে বলেছিল সমুদ্রপথকে কোনওভাবেই কোনও রাষ্ট্র রাষ্ট্রীয় সম্পত্তিতে পরিণত করতে পারে না।  আন্তর্জাতিক প্রোটোকল অনুযায়ী সেই পথ খোলা রাখতে হবে সকলের জন্য এবং দক্ষিণ চিন সাগর তীরস্থ তাবৎ দেশই ওই সাগর ব্যবহারের অধিকারী।. রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ভারতের স্থায়ী সদস্যপদ, নিউক্লিয়ার সাপ্লায়ার গোষ্ঠীর সদস্যপদ, মাসুদ আজহারের সংগঠনকে জঙ্গির তকমা দিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা ইত্যাদি বিভিন্ন ভারতের দাবিকে বস্তুত একক ভেটোয় আটকে রেখেছে বেজিং।

আর তাই ভারত সম্প্রতি পালটা লাগাতার চাপের কূটনীতি শুরু করেছে। গতকালই ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ডিআরডিও) চেয়ারম্যান এস ক্রিস্টোফার জানিয়েছিলেন সারফেস টু এয়ার আকাশ মিসাইল ভিয়েতনামকে বিক্রি করা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে।  আর এই বক্তব্যে চরম ক্ষুব্ধ চিন।  দিল্লিকে চিনের হুঁশিয়ারি, ভিয়েতনামের সঙ্গে সামরিক ঘনিষ্ঠতা বাড়ালে চিন-ভারত সম্পর্ক সুস্থ থাকবে না।  শুধু তাই নয়, আগামিদিনে এই সম্পরকের ফল ভাল হবে না বলেও দিল্লিকে হুঁশিয়ারি বেজিংয়ের।  ভারত অবশ্য সে হুঁশিয়ারিতে তেমন গুরুত্ব দেয়নি।  হ্যানয়ের সঙ্গে নয়াদিল্লির সম্পর্ক আরও বেড়েছে বই কমেনি।  সম্প্রতি তাইওয়ানের সংসদীয় প্রতিনিধি দল ভারত সফর করেছে।  তাতে চিন আরও চটেছে। তাইওয়ান তাস খেলা আর আগুন নিয়ে খেলা একই, এই ভাষাতে ভারতকে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে চিনা কমিউনিস্ট পার্টির মুখপত্রে। কিন্তু বেজিং-এর কোনও হুঁশিয়ারিকেই যে নয়াদিল্লি গুরুত্ব দিচ্ছে না, ভিয়েতনামকে আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র দেওয়ার বিষয়ে মুখ খুলে ভারত ফের সে কথা বুঝিয়ে দিল।

হিন্দুনববার্তা।

February. 19.2017.

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s