সুপ্রিমকোর্টের সামনের ভাষ্কর্য নিয়ে অপব্যাখ্যা দেয়ায় বাবুনগরীকে পেটালো উত্তেজিত জনতা।

জনতার হাতে পিটাই খাবার পর বাবুনগরী।

 

1488163590398

হিন্দুনববার্তা বাংলা ডেস্ক: february.27.2017.

সুপ্রিমকোর্টের ভাস্কর্য নিয়ে অপব্যাখ্যা দেয়ায় বাবুনগরীকে পেটালো উত্তেজিত জনতা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ মোঃ ইমামুল হোসাইন।

“সুপ্রিমকোর্টের ভাস্কর্য নিয়ে অপব্যাখ্যা করে স্বার্থ হাসিল করার অপচেষ্টা করছে বাবু নগরী হেফাজত ইসলাম”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তাদেরি একজন বলেন   “কিছুদিন আগে তারা বায়তুল মোকাররমে জায়গা চায় সরকারের কাছে, সরকারের পক্ষ থেকে সেটা নাকচ করায় তারা হুমকি দিয়েছিলো দেশ অচল করে দেয়া হবে।”

 

“সরকার কেন নাকচ করেছিলো” সাংবাদিকের এই প্রশ্নের জবাবে সেই ব্যক্তি বলেন “সরকার যা বলেছে তা বলার মত না তবুও বলতে হচ্ছে সরকার বলেছে “আপনারা তো কিছুদিন আগে ৫’মে সাপলা চত্বরে নোংরামি করে দেশের পরিস্থিতি অনেক ঘোলাটে করেছেন, আবার যখন রেল এর বরাদ্ধকৃত জায়গা দিলাম তখন আপনারা ঠাণ্ডা হয়ে গেলেন, আপনারা স্বার্থের জন্য এগুলো করছেন, তাহলে আপনাদের মত স্বার্থপরদের একটা দেশের জাতীয় মসজিদে জায়গা দেই তাহলে ধর্মকে আপনারা কোথায় পৌঁছে দিবেন সেটা ভালো করেই জানি। সুতরাং আপনাদের মত ভণ্ড, ধর্ম ব্যবসায়ী, স্বার্থপরদের কে বায়তুল মোকাররমের মত দেশের জাতীয় মসজিদে জায়গা করে দিতে পারিনা”

সাংবাদিকঃ তো আপনারা কি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, সরকার তো শক্ত অবস্থানে?

ব্যক্তিঃ আমরা অতকিছু বুঝিনা আমাদের দাবী মানতে হবে।

সাংবাদিকঃ সরকার না মানলে?

ব্যক্তিঃ তাহলে আবার ৫’মে ঘটানো হবে।

সাংবাদিকঃ এইসব ফাঁস হলে তো জনগণ আপনাদের পক্ষে থাকবে না।

ব্যক্তিঃ আমরা সেটা ভালো করেই জানি,  তাই সরকারের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান সুপ্রিমকোর্ট কে বেছে নিয়েছে, কারণ এটা জনগণের চোখে পরবে এবং মুসলিম সম্প্রদায়ের সমর্থনও আদায় করা যাবে”

সাংবাদিকঃ এটা কি মুসলিম সম্প্রদায়ের আবেগ নিয়া খেলা হচ্ছে না?

ব্যক্তিঃ দেখেন আমরাও তো মুসলিম,  আমাদের রাষ্ট্রও তো মুসলিম রাষ্ট্র, আমরা কি কিছু পেতে পারিনা?

সাংবাদিকঃ এজন্যই বুঝি এতদিন মুসলিম রাষ্ট্রর দাবি চালিয়ে আসছেন?

ব্যক্তিঃ দেখেন ওসব ব্যাপারে বলতে চাইনা কিছু।

তবেঁ আমাদের সাথে আপোষ না করলে সরকার কে চড়া মূল্য দিতে হবে।

সাংবাদিকঃ তো আপনারা সরাসরি কেন বায়তুল মোকাররমে জায়গা চাচ্ছেন না?

ব্যক্তিঃ বায়তুল মোকাররমে জায়গা চাইলে সরকার দেবে না, আর সরকার না দিলে জনগণ কিছু বলবে না, আমরাও পাবো না।  তাই সরকার কে নাস্তিক আখ্যা দিয়ে আগে সুপ্রিমকোর্ট এর ভাস্কর্য কে হিন্দুদের মূর্তি বলে মুসলিমদের মনে ঢুকাতে হবে, আগে মুসলিম সম্প্রদায় এর সমর্থন যোগানো উচিৎ।

এই কথা ফাঁস হবার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জনগণ বাবু নগরীর উপর উত্তেজিত হয়, কারণ সেই গতকাল ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে অপব্যাখ্যা দিয়েছে। উত্তেজিত জনতার হাত থেকে পুলিশ বাবু নগরীকে বাঁচিয়ে নিয়ে যায়, পরে জানা গেছে বাবু নগরী পুলিশের হেফাজতে ছিলো কতক্ষণ,  পরে সেখান থেকে পালিয়েছে।

উত্তেজিত জনতা বাবু নগরীর ফাঁশির দাবি জানিয়ে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে।

হিন্দুনববার্তা বাংলা ডেস্ক:

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s