সেনা জওয়ানকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠল স্ত্রীর বিরুদ্ধে।

বারাকপুর: সেনা জওয়ানকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল তারই শশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। মৃতের নাম সুব্রত বাগ (৩২)। ঘটনাটি ঘটেছে জগদ্দল থানার ভাটপাড়ার নয়াপল্লি এলাকায়।

 

1488215985801

হিন্দুনববার্তা বাংলা ডেস্ক: february.27.2017.

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে সুব্রত বাগের বাবা স্বপন বাগ পেশায় দিনমজুর। তার বাবা মা থাকেন ১০ নম্বর ওয়ার্ডের সূন্দিয়াপাড়ায়। স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে নয়নপল্লিতে জমি কিনে বাড়ি বানিয়ে থাকতেন সুব্রত। ১১ ফেব্রুয়ারি সুব্রত ছুটিতে নয়নপল্লির বাড়িতে এসেছিলেন। ২১ ফেব্রুয়ারি সন্ধেবেলায় অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। অবস্থার অবনতি হওয়ায় জওয়ানকে কলকাতার কমান্ড হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সোমবার ভোরে সেনা হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। এদিন সেনা জওয়ানের পরিবারের পক্ষ থেকে জগদ্দল থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে তার স্ত্রী শম্পা বাগ-সহ তিন ভাই রামকৃষ্ণ হালদার, গোবিন্দ হালদার, প্রানকৃষ্ণ হালদার এবং কাকা নির্মল হালদারের বিরুদ্ধে। অভিযোগ উঠেছে সুব্রতর উপর মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালাত স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির অন্যান্য সদস্যরা। বাবার কাছে সুব্রতকে যেতে বাঁধা দেওয়া হত। বউমার কাকা নির্মল হালদার সিপিএমের প্রাক্তন কাউন্সিলর হওয়ার সুবাদে সুব্রতর বাবা মা ভয়ে কিছু বলার সাহস পেতেন না। অভিযোগ উঠেছে, স্ত্রী শম্পার বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের কথা সুব্রত জেনে ফেলায় দম্পতির মধ্যে মাঝেমধ্যেই অশান্তি হত। এমনকি স্ত্রী সবসময়ই ফেসবুক ও অ্যাপসে চ্যাটিংয়ে মগ্ন থাকায় সুব্রত আপত্তি জানায়। গায়ে আগুন লাগিয়ে ছেলেকে হত্যার অভিযোগ তুলেছেন মৃত জওয়ানের পরিবার ও এলাকাবাসী।

এই ঘটনার তদন্তকারী অফিসার জানিয়েছেন, অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে, এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

হিন্দুনববার্তা বাংলা ডেস্ক:

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s