খুলনার কয়রায় সংখ্যালঘুর ঘরবাড়ি ভাংচুর, নারীর উপর হামলা।

খুলনা  কয়রায় জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ঘরবাড়ি ভাংচুর ও এক নারীকে মারপিট করে আহত করেছেন ভূমিদস্যুরা।

 

 

1488357909882

হিন্দুনববার্তা  বাংলা ডেস্ক: march0102.2017.

আহত ললিতা বিশ্বাস মালীখালী গ্রামের মুকুন্দ বিশ্বাসের স্ত্রী । আহত ললিতা বিশ্বাসকে ঘটনাস্থল থেকে ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মণি রায় ও তার সঙ্গীরা উদ্ধার করে সুচিকিৎসার জন্য উপজেলা জায়গীর মহল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের চৌকুনি মোড়স্থ ভুক্তভোগীর নিজের জমিতে। ভুক্তভোগীর পরিবার  সুত্রে জানা যায়, আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে ভুমিদস্যু নান্টু সরদার(৪৮), আইয়ুব আলী সরদার(৪৫), খোকন মোল্লা(৪২) সহ জামায়াত বিএনপির কতিপয় সন্ত্রাসীদের সাথে নিয়ে মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের চৌকুনি মোড়স্থ ভুক্তভোগীর নিজ জমিতে ঘর বেঁধে বসবাস করা অবস্থায় সংখ্যালঘু পরিবারের উপর অতর্কিত বসত বাড়ীতে হামলা চালিয়ে ঘর সম্পূর্ণ রূপে ভাংচুর ও বাড়ীর মালিক ললিতা বিশ্বাস (৪৭)কে এলোপাতাড়ি ভাবে মারপিট করে সন্ত্রাসীরা  দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

এব্যাপারে মহেশ্বরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান বিজয় কুমার সরদার এর নিকট জানতে চাইলে ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, আহত ললিতা বিশ্বাসকে সুচিকিৎসার জন্য খুমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

বর্তমানে ললিতার অবস্থা আশংকা জনক। তিনি আরো বলেন, ভাংচুর ও মারপিটের  ঘটনার সঠিক তদন্ত পূর্বক প্রকৃত দোষীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী ও ভবিষ্যতে এধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে সে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ ঘটনায়  কয়রা থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন বলে জানা গেছে। এ রিপোট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

হিন্দুনববার্তা  বাংলা ডেস্ক:

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s