বাংলায় বিজেপি কিছু করতে পারবে না উল্টে না কেন্দ্রে ক্ষমতা হারায়, মোদী।

বাংলায় বিজেপি কিছু করতে পারবে না উল্টে না কেন্দ্রে ক্ষমতা হারায়, মোদী।

1489241944618

the hindunobobarta magazine news by 20.03.2017.

পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের পর বিজেপি জাতীয় সভাপতি অমিত শাহ জানিয়ে দিয়েছেন, এবার তাঁদের লক্ষ্য দক্ষিণ ও পূর্বের রাজ্যগুলি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নজরে যে এবার মমতার রাজ্য রয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।
শুক্রবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মোদীকে খোলা চ্যালেঞ্জ করে জানিয়ে দিলেন, মোদী পশ্চিমবঙ্গের দখল নিতে এলে তিনিও ছেড়ে দেবেন না। তিনিও ভারত দখল করতে ঝাঁপিয়ে পড়বেন।
মমতার মতে, বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে কিছু করতে পারবে না। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওরা পারবে না। কীভাবে পারবে? ওরা তো ভোটের বিচারে তৃতীয় না চতুর্থ দল। জোর করে ক্ষমতা দখল করবে নাকি? ওরা যদি বাংলাকে টার্গেট করে, আপনার কী মনে হয় না আমরা ভারতকে টার্গেট করব?’
বিজেপির যেমন পশ্চিমবঙ্গে সংগঠন বাড়ানোর স্বাধীনতা আছে, তৃণমূলেরও তেমন সর্বভারতীয় স্তরে ক্ষমতা বাড়ানোর স্বাধীনতা আছে বলে মনে করেন মুখ্যমন্ত্রী। বাংলার মানুষকে বিভেদের রাজনীতিতে জয় করা যাবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন মমতা।
মমতা আরও একবার আঞ্চলিক দলগুলিকে এক হওয়ার আহ্বান জানান। যে কোনও প্রস্তাবেই তিনি রাজি হবেন বলে সাংবাদিকদের জানান। তিনি বলেন, সবাই এক সঙ্গে এলে তিনি খুশিই হবেন। ‘আমার কারও সঙ্গে কাজ করতে অসুবিধা নেই। দেশের জন্য এটাই ভালো যে সরকারি দল ভাল কাজ করবে আর বিরোধী দলগুলি শক্তিশালী হবে।’
২০১৪ সালের নির্বাচনের পর থেকেই তাঁদের উপর আক্রমণ নেমে এসেছে বলে মমতা শুক্রবার অভিযোগ করেন। কীভাবে সিবিআইকে দিয়ে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে তার উদাহরণ দিয়ে মোদীর রাজনৈতিক ক্ষমতার অপব্যবহারের প্রসঙ্গ তোলেন মমতা। নারদ তদন্তভার সিবিআইকে তুলে দেওয়ার পিছনেও বিজেপির হাত রয়েছে বলে মমতা সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।
মমতা ভালই বুঝেছেন মোদীকে নিয়ে তাঁকে নরমে গরমে চলতে হবে। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার চাপের কাছে খানিকটা নরম হয়ে বা উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনের ফলাফলের পরে কেন্দ্রের সঙ্গে ‘বোঝাপড়ার’ বার্তা দিলেও, তিনি বিজেপির বিরুদ্ধে রাজনৈতিক আক্রমণ একেবারে বন্ধ করতে পারবেন না।
যতদিন পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল রাজনৈতিক সাফল্য ধরে রাখতে পারবে, ততদিন তিনি মোদীর সঙ্গে লড়াই করে যেতে পারবেন। এই সাফল্যকে ধরে রাখতে একদিকে যেমন তাঁর সরকারের কাজ হাতিয়ার হবে, অন্যদিকে এরাজ্যে বিজেপির আগ্রাসনকে ঠেকিয়ে রাখাও দরকার হবে। আর তাই বিজেপি ও মোদীকে আক্রমণ করা রাজনৈতিক ভাবে জরুরী মমতার।

হিন্দুনববার্তা বাংলা the magazine news
-এবেলা– -(১৮-০৩-১৭)
ভালো লাগলে শেয়ার করুন –
Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s