মহরম-ইদ-বড়দিন পালনে মেরুকরণ হয় না, রামনবমী পালনে কেন হবে? প্রশ্ন দিলীপের।

মহরম-ইদ-বড়দিন পালনে মেরুকরণ হয় না, রামনবমী পালনে কেন হবে? প্রশ্ন দিলীপের।

1491378392698

বর্ধমান, ৪ এপ্রিল : “মহরম, ইদ, বড়দিন পালন করলে মেরুকরণ হয় না। রামনবমী পালন করলে কেন হবে ? আর যদি মেরুকরণ হয়, তাহলে আমরা মেরুকরণ করব। রামনবমী পালনের মাধ্যমেই করব। হিন্দু সমাজকে বাঁচাতে হবে। শাসকদল সাবধান হয়ে যাক। কারণ, রামের রাজত্ব প্রতিষ্ঠা হবে। রাবণবধ হবে।” আজ কালনার নিভুজি মোড়ের কাছে প্রকাশ্য জনসভা থেকে একথা বললেন BJP রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

 

তিনি আরও বলেন, “আজ পশ্চিমবঙ্গে হিন্দু সমাজ অসুরক্ষিত। দিনে দিনে হিন্দুরা সংখ্যালঘু হয়ে পড়ছে। আজ মঠ-মন্দির আক্রান্ত, থানা-পুলিশ আক্রান্ত। তাই হিন্দুদের প্রয়োজনে হাতিয়ার নিয়ে বেরিয়ে নিজেদের সুরক্ষার দায়িত্ব নেওয়া উচিত। কেউ যদি চোখ বন্ধ করে থাকে প্রলয় কিন্তু থেমে থাকবে না।” আগামীকাল রামনবমী। সেই উপলক্ষে বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে শোভাযাত্রায় বেরনো হবে বলেও জানান তিনি। দিলীপবাবু বলেন, “আমাদের ৩৩ কোটি দেব-দেবী। সবার হাতেই অস্ত্র আছে। অস্ত্র শক্তির প্রতীক। আমরাও শক্তি পুজো করি। শক্তির উপাসক। তাহলে শক্তি প্রদর্শন করব না কেন ? যা যা অস্ত্র দেব-দেবীর হাতে আছে তা নিয়ে শোভাযাত্রায় বেরবো। আগামীকাল রামনবমী তাই সসস্ত্র হয়ে শোভাযাত্রা বেরবে। হিন্দুদের অস্তিত্ব সংকট হচ্ছে ধীরে ধীরে। তাই, অস্ত্র নিয়ে নিজেদের সুরক্ষায় নামা উচিত। বাংলার লোকেরা দুর্বল হয়ে গেছে বলে বিদেশি আক্রমণ হচ্ছে। প্রতিহত করতে হবে আমাদেরই।”

বিভিন্ন জায়গায় রামনবমী পুজোর শোভাযাত্রার অনুমতি দিচ্ছে না প্রশাসন। এ প্রসঙ্গে দিলীপবাবু বলেন, “অনেক জায়গায় পারমিশন দেওয়া হচ্ছে না। তবে, শোভাযাত্রা আটকে থাকবে না। হিন্দুরা সংখ্যালঘু হচ্ছে। আর সরকারের হুঁশ নেই। মা, বোনেদের উপর আক্রমণ হচ্ছে। তাই, হিন্দুসমাজ যদি হাতিয়ার তুলে নেয়, তাহলে বাধা না দিয়ে সাহায্য করা উচিত। পুলিশ বাধা দিলে উত্তরপ্রদেশে যা হয়েছে তা বাংলাতেও হবে। প্রয়োজন হলে হিন্দু সমাজ নিজেদের সুরক্ষার দায়িত্ব নেবে। আজ অস্ত্র না ধরলে পরিচয় দেওয়ার সুযোগ থাকবে না।” রামনবমীর মাধ্যমে মেরুকরণের রাজনীতি হচ্ছে কি ? এই প্রশ্নের উত্তরে BJP রাজ্য সভাপতি বলেন, “মেরুকরণ কমিউনিজ়মের নামে হতে পারে, সেকুলারিজ়মের নামে হতে পারে। তাহলে হিন্দুত্বের নামে মেরুকরণের অধিকার আমাদেরও আছে। আমরা তা করব। কেউ পারলে আটকে দেখাক।”

জেলায় জেলায় প্রশাসনিক সভা থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী BJP-কে তীব্র আক্রমণ করছেন। এ প্রসঙ্গে দিলীপবাবু বলেন, “রাজ্যে রাজ্যে গেরুয়া ঝড় দেখে দিদি ভয় পেয়েছেন। তাই, কথায় কথায় BJP-র নাম নিচ্ছেন। আপনি পশ্চিমবঙ্গ সামলান। নাহলে আবার দিল্লি যাবেন। এদিকে পশ্চিমবঙ্গ দখল হয়ে যাবে।”

হিন্দু নববার্তা

ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

by EEnadu bangla. 05.04.2017.

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s