“গরু জবাই করুন, কেউ কিছু বললে পুলিশকে জানান”- মমতা।

“গরু জবাই করুন, কেউ কিছু বললে পুলিশকে জানান”- মমতা।

1491902333544

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠিসহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা রাজ্যবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।সেই সাথে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন তার রাজ্যে মুসলিমদের ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী সকল মুসলিমর গরু কুরবানি দিতে পারবে। কেউ বাধা দিলে পুলিশকে জানান।এই ব্যাপারে যেনো কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য প্রশাসনকে যথাযথ নির্দেশ দেয়া হয়েছে।আজ সন্ধায় মুসলিমদের পাঠানো ঈদের শুভেচ্ছা বার্তায় একথা বলছেন তিনি।

তিনি তার বার্তায় বলেন ধর্ম নিয়ে ভেদাভেদ মানব না। যারা এরকম করছে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শুনছি অনেকে গরু নিয়ে সমীক্ষায় নেমেছেন। খুব খারাপ রুচির পরিচয়। নোংরা খেলা খেলছে।কোনওরকম প্ররোচনায় পা দেবেন না। ধর্ম সবার প্রাণে। প্রত্যেক ধর্মকেই আমরা শ্রদ্ধা করি। আদিবাসী, খ্রিস্টানরা গো–মাংস খান।

ইউরোপের অনেক দেশেও খাওয়া হয়। অনেকে মাছ খান, হাঁস খান, ডিম খান, মুরগি খান। যাঁর যা খাবার তিনি তা খাবেন। যাঁর যেটা ভাল লাগে। এটা তাঁদের রুচির বিষয়। অনেকে তো আবার সবজি খেতে ভালবাসেন। জগদীশচন্দ্র বসুর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, তিনি তো বলেছিলেন গাছেরও প্রাণ আছে। মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য, তাহলে তো পটলেরও প্রাণ আছে। এরপর শ্রীরামকৃষ্ণদেব, স্বামী বিবেকানন্দ, নজরুলের কথা উল্লেখ করেন। বলেন, এঁরা ভারতের সব ধর্মকে মানতেন, শ্রদ্ধা করতেন ।

আমরাও সব ধর্মকে সম্মান করি। আমি এই চেয়ারে বসে হাতজোড় করে বলছি, সব ধর্মই আমাদের কাছে সমান। যাঁর যাঁর ধর্ম তাঁর তাঁর কাছে। তাঁরা সেভাবেই পালন করবেন। আমরাও থাকব। ধর্ম প্রাণে আছে, মনে আছে, হৃদয়ে আছে। গরু নিয়ে সমীক্ষা!‌ এ সব কী হচ্ছে?‌ আমি কী খাব, না খাব এটা কী অন্য কেউ ঠিক করে দেবে?‌‌‌

উল্লেখ্য মাত্র কয়েক দিন আগে ভারতের হরিয়ানা রাজ্যে গরুর গোস্ত খাওয়ায় দুই মুসলিম নারীকে ধর্ষণ করা হয়েছে।পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে তার চাচা চাচিকে।বিজেপি শাষিত ভারতে গরু নিয়ে রাজনীতি এখন তুঙ্গে।সংখ্যালঘু মুসলিমরা এই রাজনীতিতে বলির পাঠা হচ্ছে।

এই অবস্থায় গরু কুরবানি দিতে আহভান জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।এর আগেও তিনি গরু নিয়ে মুসলিমদের প্রতি পাশবিক নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়েছেন।হিন্দু ধর্মের কোথাও গরু খাওয়া যাবেনা এই কথা নেই বলে তিনি মতামত ব্যাক্ত করেছেন।

হিন্দু নববার্তা ম্যাগাজিঙ নিউজ ১১.০৪.২০১৭.

 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s