নদী শুকিয়ে উদ্ধার হল ১০০০ শিবলিঙ্গ।

নদী শুকিয়ে উদ্ধার হল ১০০০ শিবলিঙ্গ।

1492358120037

 

 

কথায় আছে ‘বিশ্বাসে মিলায় বস্তু , তর্কে বহুদূর’। ঈশ্বরে যাদের বিশ্বাস আছে, তারা তো এই ঘটনা শুনলে অবাক হবেনই। আর যারা বিশ্বাস করেন না তারাও এড়িয়ে যেতে পারবেন না। কিছুদিন আগে একটি নদী শুকিয়ে গিয়ে ভেসে উঠল হাজারটি শিবলিঙ্গ। এই নদীটি হল কর্ণাটকের শালমালা নদী। এখন এই নদী সহস্রলিঙ্গ নামেও পরিচিত। হাজারটি লিঙ্গ ভেসে ওঠার ফলেই এর এমন নাম।

উত্তর কর্ণাটকের সিরসি থেকে ১৭ কিলোমিটার দূরে, এই এলাকায় দেখতে পাওয়া যায় এই এই শিবলিঙ্গগুলি। প্রত্নতত্ত্ববিদ্‌রা মনে করেন ১৬৭৮-১৭১৮ সালে সিরসির রাজা সদাশিবরাই এই শিবলিঙ্গ গুলি তৈরি করেছিলেন। তিনি ছিলেন বড় শিবভক্ত। তাই শিবের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই এই উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি।

এই শিবলিঙ্গ গুলি ঘিরে ছিল পাথরের ষাঁড়ের মূর্তি। মহাদেবের বাহন ষাড় বলেই এই মূর্তি গুলিও বানিয়েছিলেন এই রাজা। তিনি মনে করতেন এই ষাড়ের মূর্তিগুলি অমূল্য শিবমূর্তি গুলিকে রক্ষা করবে। রাজা সদাশিবরাই এর মৃত্যুর পর এই শিবলিঙ্গগুলি শালমালা নদীর গ্রাস করে নেয়। ফোলে এতবছর এই মূর্তি গুলি মানুষের সামনে আসেনি। ঢাকা পড়েছিল। এখন তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে জল শুকিয়ে গেছে নদীটির। তাই আবার উদ্ধার হয়েছে এই প্রাচীন মূর্তিগুলি।

হিন্দু নববার্তা ম্যাগাজিঙ নিউজ ১৬.০৪.২০১৭.

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s