শরিয়া কারণ ছাড়া তিন তালাক দিলে সামাজিক বয়কট : মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড।

শরিয়া কারণ ছাড়া তিন তালাক দিলে সামাজিক বয়কট : মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড।

1492421966516

ওয়েব ডেস্ক : দেশে তিন তালাক নিয়ে চলতি বিতর্কের মাঝেই যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিল অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড। গত রবিবার পার্সোনাল ল’ বোর্ড ঘোষনা করে যে, শরিয়া কারণ ব্যাতিত যদি কেউ তিন তালাক দেয় তাহলে তাকে সামাজিক বয়কট করা হবে।

ল’ বোর্ড জানায়, তিন তালাক আইনে বদল আনার চেয়ে যারা এই আইনের অপপ্রয়োগ করে তাদের আচরণ বদলানো দরকার। বোর্ড আরও বলে, নিজের দেশে মুসলিম পার্সোনাল ল’ মেনে চলা একজন ব্যাক্তির সাংবিধানিক অধিকার।

অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়, আগামী দেড় বছরের মধ্যে তিন তালাকের সমস্যা মিটিয়ে ফেলা হবে। এই মামলায় সরকার পক্ষকে হস্তক্ষেপ না করার কথাও জানায় বোর্ড।

অপরদিকে, গত ৩০ মার্চ এক বড়সড় সিদ্ধান্ত নেয় সুপ্রিমকোর্ট। তালাক এবং তালাকের পর মুসলিম মহিলাদের অধিকার বিষয়ে আদালত একটি সাংবিধানিক বেঞ্চের গঠন করে। পাঁচজন বিচারপতির এই বেঞ্চ ১১ মে থেকে এই মামলার শুনানি করবে। এই বেঞ্চে প্রধান বিচারপতি জে এস খেহরও থাকতে পারেন।

জুন পর্যন্ত চলা এই মামলায় সম্ভবত তিনটি সাংবিধানিক বেঞ্চ গঠন করা হবে। এই বেঞ্চগুলি তিন তালাক ছাড়াও অন্যান্য দুটি  ইস্যুতে শুনানি করবে।

এই শুনানির বিরোধিতা করে মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ড। বোর্ড বলেছিল, ধর্মীয় বিষয়গুলিকে সংবিধানের দাঁড়িপাল্লায় ওজন করতে পারেনা আদালত। মৌলিক অধিকার ব্যাক্তির বিরুদ্ধে প্রযোজ্য করা যায়না। সুপ্রিমকোর্টে জমা দেওয়া লিখিত পত্রে ল’ বোর্ড জানায়, তিন তালাক পবিত্র কুরআনে উল্লেখিত একটি আইন। আর এই আইনকে সংবিধানের দাঁড়িপাল্লায় ওজন করা মানেই কুরআন পুনরায় লেখার মতোই ব্যাপার, যার অনুমতি একদমই নেই।

হিন্দু নববার্তা ম্যাগাজিঙ নিউজ ১৭.০৪.২০১৭.

ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

প্রকাশ :টিডিএন বাংলা।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s